NewsPC

32 Bit vs 64 Bit Processor and Operating System | Which One Do You Need?

আজকের এই আর্টিকেল এ কথা বলবো 32 Bit vs 64 Bit Processor and Operating System নিয়ে।আমার মতে এই বিষয় নিয়ে কনফিউজ থাকেন, যে আমার PC তে 32 Bit অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল দিব নাকি 64 Bit অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল দিব?

আবার কোন সফটওয়্যার ডাউনলোড দিতে গেলে 32Bit বা 64 Bit অপারেটিং সিস্টেম চাই।তো এই বিষয় নিয়ে অনেকে কনফিউজ থাকে ।তো আজকে আমরা এই বিষয় নিয়ে কথা বলবো .

প্রথমেই একটি জিনিস জেনে নেওয়া দরকার সেটি হচ্ছে ,32 Bit এবং 64 Bit এর সাথে আরেকটি শুনে থাকেন X86.তো বলে রাখি x86 সমান ৩২-বিট এই দুইটা জিনিসই সেইম। x86=32 Bit.so, আমরা দুইটাকে একসাথে রাখছি 32 Bit। আমরা এখন এক্সপ্লেন করব 32 Bit আর 64 Bit নিয়ে।

32 Bit and 64 Bit কে আলাদাভাবে ডিভাইডেড করা কারণ হচ্ছে Memory Addressing Power.

Memory Addressing Power.

Memory Addressing Power
মেমোরি অ্যাড্রেসিং পাওয়ার টা কি?

32 Bit এ মেমোরি অ্যাড্রেসিং পাওয়ার এর অ্যামাউন্ট একটু কম ।আর 64 Bit এ মেমোরি অ্যাড্রেসিং পাওয়ার এর অ্যামাউন্ট অনেক বেশি ।যদি আমরা এই জিনিসটা বুঝতে চাই যে,

মেমোরি অ্যাড্রেসিং পাওয়ার টা কি?

কম্পিউটারের প্রসেসর গুলো যখন কাজ করে,ডাটা যখন প্রসেস করে তখন সেই ডাটাগুলোকে temporary রাখতে হয়। সেই টেম্পোরারি ডাটা রিস্টোর করে রাখার জন্য আমরা ইউজ করি RAM. টেম্পোরারি ডাটাগুলো RAM এ রাখা হয় ।এখন যে 32 Bit এর অপারেটিং সিস্টেম বা প্রসেসর রয়েছে সেইটাতে অ্যাড্রেসিং পাওয়ার low হয়,আর 64 Bit এ বেশি হয়।

এখন এই হিসাবটা কিভাবে করা হয় যে, 32 Bit এ কত হবে এবং 64 Bit এ কত হবে ?এখন আমরা সেই হিসাবটা করার জন্য 32 Bit থেকে শুরু করি..

আরও পড়ুন: Top 5 Best Music App For Android Free

আমরা যদি 1 Bit এর প্রসেসর ধরি তাহলে দুইটা অ্যাড্রেসিং লোকেশন থাকে এবং যদি Bit এর সংখ্যা বাড়ে তাহলে অ্যাড্রেসিং লোকেশন তার ডাবল হবে ।
তাহলে হবে ,
1 Bit প্রসেসর = 2 Locations হয়ে যাবে.
যদি 2 Bit এর হয় তাহলে লোকেশন হবে চারটা।
আবার যদি 3 Bit এর প্রসেসর হয় তাহলে লোকেশন হবে 9 টি।

so, আমরা যদি Bit এর মান বের করতে চাই তাহলে Bit এর মানে সাথে 2 পাওয়ার হিসেবে নিতে হবে।তাহলে আমরা যদি ৩২ Bit হিসাব করতে যাই,তাহলে হবে 2^32=4294967296 .এখন আমরা যদি 4294967296 কে গিগাবাইটে কনভার্ট করি ,তাহলে এর মান আসে 4GB.তাহলে 32 Bit শুধুমাত্র 4GB পর্যন্ত মেমোরি সাপোর্ট করে ।এখন আপনি যদি ৩২-বিটের প্রসেসর অপারেটিং সিস্টেমে 8gb মেমোরি লাগালে শুধুমাত্র 4 জিবি মেমোরি ইউজ হবে। অতএব, আপনি যদি ৩২-বিটের প্রসেসরে 4 জিবি উপরে মেমোরি ব্যবহার করেন তাহলে সেই মেমোরি টুকু কোন কাজেই আসবে না, ৩২-বিটের অপারেটিং সিস্টেমে সর্বোচ্চ 4 জিবি মেমোরি ব্যবহার হবে ।

আরও পড়ুন: হোস্টিং কি? হোস্টিং কত প্রকার? হোস্টিং এর দাম A To Z

এখন যদি 64-বিট এর প্রসেসর এর লোকেশন সংখ্যা বের করি তাহলে হবে, 2^64=18446744073709551616. আমরা যদি এই নাম্বারটি কে গিগাবাইটে কনভার্ট করি তাহলে হবে 2147483648 GB.সো আমরা এটিকে গিগাবাইটের কনভার্ট না করে ExaByte কনভার্ট করব। তাহলে ExaByte হবে 16-EB
তাহলে,এই 16-EB র্যাম ব্যবহার করতে পারবে ৬৪-বিট প্রসেসিং কিংবা অপারেটিং সিস্টেম।এত বড় মেমোরি এখনো আবিষ্কার হয়নি ।তাহলে বলতে পারি ,

Use Of Ram

32Bit = 4GB Ram Max
64Bit = 16 EB Ram Max

সহজে যদি বলতে যাই, তাহলে ৬৪-বিট এর অপারেটিং সিস্টেম টা লেটেস্ট। এখন যে লেটেস্ট সফটওয়্যার গুলো তৈরি হচ্ছে ,গেম রিলিজ হচ্ছে বা বড় বড় সফটওয়্যার গুলো যেমন: এডোবি এর প্রোডাক্ট গুলো লেটেস্ট যে সফটওয়্যার গুলো তৈরি হচ্ছে সেগুলো 64-বিট এর।তার জন্য আপনাকে সফটওয়্যার ইনস্টল করার সময় বলে দেয়, ওই সফটওয়্যার টি শুধুমাত্র ৬৪-বিট অপারেটিং সিস্টেমে চলবে। কারণ হচ্ছে 64-বিটে Ram বা মেমোরি বেশি।কারণ বড় বড় সফটওয়্যার গুলো চালাতে হলে অনেক মেমোরি এর দরকার হয়।

অল্ড জেনারেশন কম্পিউটার গুলোতে ৩২-বিট অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হয় ।এখন যদি আপনার কম্পিউটারের মেমোরি ৪-জিবি এর কম হয়,তাহলে রিকমেন্ডেড থাকবে ৩২-বিট অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করার জন্য ।এখন আপনারা বলবেন ৪-জিবি এর নিচে মেমোরি থাকলে ৬৪-বিট অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা যাবে কিনা?
উত্তর হচ্ছে: হ্যাঁ.তবে সফটওয়্যার গুলো তেমন ভাল রান হবে না আপনার পিসি কিংবা ল্যাপটপ অনেকটা স্লো হয়ে যাবে। আপনি 64-বিট অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করতে পারবেন এবং 64-বিটের সফটওয়্যার গুলো রয়েছে সেগুলো ব্যবহার করতে পারবেন।
বিঃ দ্রঃ 32-বিটের সফটওয়্যার 64-বিট এ চালাতে পারবেন ।কিন্তু 64-বিটের সফটওয়্যার গুলো 32-বিট এর অপারেটিং সিস্টেমে চালাতে পারবেন না ।

2GB মেমোরি পিসিতে 64-বিট এর অপারেটিং সিস্টেম দিতে পারবেন ,কিন্তু অরজিনাল 64-বিটের জন্য বানানো সফটওয়্যার গুলো স্লো কাজ করবে ।

কিভাবে দেখবেন আপনার পিসি টা কত বিট এর?

কিভাবে দেখবেন আপনার পিসি টা কত বিট এর?
কিভাবে দেখবেন আপনার পিসি টা কত বিট এর?

আপনার কম্পিউটার টা কত বিট এ আছে সেটি দেখতে হলে প্রথমে আপনাকে My Computer এ রাইট ক্লিক করে Properites এ যেতে হবে।তারপর দেখতে পাবেন সেখানে লেখা আছে System type.

Shihab

Bangla Tech Blogger

Related Articles

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

You cannot copy content of this page